আমি আমার করা ভুল থেকে শিখি: এলিফ শাফাক



এলিফ শাফাক (Turkey: Elif Şafak; English: Elif Shafak) একজন টার্কিশ-বৃটিশ লেখিকা। তিনি ১৯৭১ সালে ফ্রান্সের স্ট্রাসবার্গে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর ছোটবেলা কাটে মাতৃভূমি তুরস্কে। বর্তমানে তিনি যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন। ঔপন্যাসিক এলিফকে তুরস্কের সর্বাধিক পঠিত নারী লেখক হিসাবে গণ্য করা হয়। টার্কি ও ইংরেজিতে এ পর্যন্ত এলিফের মোট সতরটি বই প্রকাশিত হয়েছে, যার এগারটিই উপন্যাস।  ২০১০ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রকাশিত তাঁর উপন্যাস THE FORTY RULES OF LOVE প্রকাশের প্রথম মাসে দেড় লক্ষ কপি বিক্রি হয়। বলা হয়ে থাকে, এটিই তুরস্কের কোন লেখকের সর্বাধিক বিক্রিত বই। নারী অধিকার কর্মী এলিফ শাফাকের একটি সাক্ষাৎকার গ্রহণ করে লন্ডনভিত্তিক পত্রিকা প্রসপেক্ট (The Prospect Magazine)। অকালবোধন এর পাঠকদের জন্য সাক্ষাৎকারটি বাংলা অনুবাদ করেছেন জেসিকা আক্তার জেসি।



দ্য প্রসপেক্ট: শৈশবের কোন স্মৃতিটা আপনার মনে আছে?
এলিফ: আমার জন্ম স্ট্রাসবার্গে। এবং ছোটবেলাতেই আমি আঙ্কারা চলে যাই। সে সময় তুরষ্কে ভয়াবহ রাজনৈতিক সহিংসতা চলছিল এবং আমার মনে আছে, দাদীর বাড়িতে আমরা রেডিও শুনতাম। রাস্তায় রাস্তায় বোমাবাজি, ছাত্রদের গ্রেফতারের খবরগুলো শুনতাম। অইসময়টায় দাদীর বাড়িটা হয়ে উঠেছিল লোককাহিনী আর কল্পকাহিনীতে ভরপুর একটি পরাবাস্তব, আধ্যাত্মিক আর অবাস্তব পৃথিবী। বাইরের রাজনৈতিক জগত আর বাড়ির ভেতরের আধ্যাত্মিক জগত- এ দুইয়ের বৈশাদৃশ্য আমার সাথেই ছিল।

দ্য প্রসপেক্ট: সবচেয়ে বড় সমস্যাটি কী?
এলিফ: মূল উদ্বেগটা হলো, আমাদের ইতিহাস থেকে শেখার অক্ষমতা আর সকলের আংশিক স্মৃতিভ্রম। আরেকটা বিষয় হলো, যারা আমাদের মতো না, তাদের প্রতি আমাদের অবিরাম ভয়।

দ্য প্রসপেক্ট: আপনি যদি ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ কোন সময়ে কোন বিশেষ স্থানে একদিন সময় কাটানোর সুযোগ পান, আপনি কোন সময় আর কোন জায়গাটি বেছে নিবেন?
এলিফ: আমি জার্মানির মাইঞ্জ শহরে যেতে চাইবো, যখন দীর্ঘ রাজনৈতিক নির্বাসন শেষে জোহান্স গুটেনবার্গ শহরে ফিরে এসেছিলেন তাঁর মুদ্রণযন্ত্রটি চালু করতে। কাঠ, কাগজ আর কালির গন্ধ, কল্পনা করুন সেই ঘরে ঘন্টার পর ঘন্টা আলোর বদলে যাওয়া, চোখের সামনে শব্দ, বাক্য পৃষ্ঠার ছাপা হতে যাওয়া!

দ্য প্রসপেক্ট: আপনার প্রিয় উদ্ধৃতি (Quotation) কোনটি?
এলিফ: এটা খুব সম্ভবত রুমি’র: “আমি না খ্রিস্টান, না ইহুদি… না মুসলিম। আমি পুবের না, পশ্চিমেরও না, আমি না স্থলের, না সাগরের… আমি আমার দ্বৈততাকে দূরে রেখেছি… ও শামস তাবরিজ, আমি এই দুনিয়ায় এতই মাতাল যে মাতালতা আর উচ্ছ্বাস ছাড়া আমার বলার কোন গল্পই নাই”। এই কবিতাটা আমার কাছে খুব দামি।

দ্য প্রসপেক্ট: আপনাকে যদি অন্য মানুষের জন্য খরচ করার জন্য দশ লক্ষ পাউন্ড দেওয়া হয়, তাহলে আপনি এটা কিভাবে আর কোন কারণে খরচ করতে চাইবেন?
এলিফ: এটা আমি লিঙ্গসমতা, নারীর স্বাস্থ্য আর বালিকাদের শিক্ষার জন্য ব্যয় করবো। কারণ যে সমাজ তার অর্ধেক জনসংখ্যার সাথে বিভেদ করে, সে সমাজ পিছিয়ে পড়তে বাধ্য।

দ্য প্রসপেক্ট: আপনার সবচেয়ে বড় অনুশোচনা কী?
এলিফ: আমি আমার করা ভুল থেকে শিখি। তাই আমি আমার ভুলত্রুটিগুলো নিয়ে অনুশোচনা করতে পারি না, কারণ এগুলো আমাকে গুরুত্বপূর্ণ কিছু শিখিয়েছিল, যে বুঝতে আমার কিছুটা সময় লেগেছিল।

দ্য প্রসপেক্ট: আপনার সম্পর্কে কী জেনে মানুষ অবাক হবে?
এলিফ: আমি গেথিক মেটাল, ইন্ডাস্ট্রিয়াল মেটাল, ভাইকিং-প্যাগান-ফোক মেটাল এবং মেটাল কোরের দারুণ ভক্ত। মূলত গম্ভীর আর বেশি জোর আওয়াজের স্ক্যান্ডিনেভিয়ান মেটাল ব্যান্ডগুলো। আমি যখন উপন্যাস লিখি, তখন এই গানগুলি বারবার শুনতে থাকি।

দ্য প্রসপেক্ট: আপনি আপনার দেশ নিয়ে গর্বিত?
এলিফ: আমার অনেকগুলো স্বদেশ; বলতে পারেন ভাসমান স্বদেশ। একই সময়ে যুক্তরাজ্য আমার দেশ, যেখান আমি থাকি, মুক্তভাবে লেখালেখি করি, যেখানে আমার সম্মান আছে; আমি এই দেশ আর সংস্কৃতিকে ভালোবাসি। কিন্তু আমার দেশ তুরস্ক, আমার মাতৃভূমি, যাকে আমি আমার ভেতর সবসময় লালন করি, ভালোবাসি। এবং হ্যাঁ, কারণ একজন গল্পকথক হিসাবে গল্পভূমিও (Storyland) আমার স্বদেশ।

দ্য প্রসপেক্ট: কোন ধরণের মানুষের সাথে আপনি একত্রে সময় কাটাতে পছন্দ করবেন?
এলিফ: আমি বেছে নিতাম কোন নির্বাচিত স্বৈরশাসক কিংবা জনপ্রিয় বাগ্মী কোন নেতাকে। যদি আমি একদিনের জন্য তাদের মতো হতে পারতাম, তাহলে আমি একটি প্রেস কনফারেন্স আয়োজন করতাম, জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতাম আর তারপর পদত্যাগ করতাম।



প্রসপেক্ট পত্রিকা (The Prospect Magazine) যুক্তরাজ্যের লন্ডন থেকে প্রতি মাসে প্রকাশিত হয়। মূলত রাজনীতি, অর্থনীতি সহ সাম্প্রতিক ঘটনাপ্রবাহগুলো এই পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। ১৯৯৫ সালের অক্টোবরে যাত্রা শুরু করা পত্রিকাটির সম্পাদক টম ক্লার্ক (Tom Clark) এবং প্রকাশক প্রসপেক্ট পাবলিশিং লিমিটেড (Prospect Publishing Ltd)। প্রসপেক্টে প্রকাশিত এলিফ শাফাকের মূল সাক্ষাৎকারটি পড়তে এই লিংকে ক্লিক করুন: www.prospectmagazine.co.uk/magazine/elif-shafak-interview-turkey-populism



error: Content is protected !!